ভূবনমোহিনী

0৯. প্রতিভ1।

০২৯০৬ 4০,

01181

যা | শে

শ্রীবিনৌদবিহারা হায়:

প্রকাশিত

দ্বিতীয় সংস্করণ পর্রিবদ্ধিত।

শশা

আল্বাট প্রেস্‌।

৪৬ নং শিবনারা়ণ দাঁদের লেন) কর্ণবধলিস ঈউ, বাহির দিমলা, কলিকাতা

১২৮৬।

মূল্য ১২টাকা।

আশুতোষ ঘোষ এবং কোম্পানি দ্বারা আলবার্ট প্রেসে দুদ্রিত।

বিজ্ঞাপন।

প্রথম সংস্করণে “আর্য্যসঙ্গীত* নাঁমে বে একটী অম্পূর্ণ কবিনা প্রকাশিত হইয়াছিল, তাহা একটা খণ্কবিতা নহে একথানি কাব্য গ্রন্থের একাংশ মান্র। এইক্ষন "আর্ধ্যসঙ্গীত” শ্বতন্ব পুস্তকাঁরে জনসমাঁজে প্রচারিত ভইয়াছে। “আর্ধাং সঙ্গীতের” গরিবর্ে “জদয়োচ্ছাস” "রাণী অনপূর্ণা” এবং “কিবা দেখিলাম” ইতাভিধের ৩টী অভিনব প্রবন্ধ গ্রকাশিত হইল।

“ছাদয়োচ্ছাস৪” একটী খণ্ড কবিতা নহে, একখানি কাব্য গ্রন্থের একাংশ মাত্র বিশেষ কোন প্রতিবন্ধক নিবন্ধন গ্রন্তের পরিসমাপ্তি হইতে সন্তবাধিক কালবিবন্ব হইবে) এইজন্য আপাততঃ যে বর্গ লিখা শেষ হইয়াছে সাহা এই পুস্তকে গ্রকাশ করা গেল

একটা প্রতিমার একাংশ মাত্র দেখিয়াই তাহার পূর্ণ দৌন্দর্যা উপলদ্ধি হওয়া অসম্ভব, কেবল সেই অংশের গঠন্‌ “স্ব, বর্ণ প্রতিভা শিরপারিপাট্যাদি দেখিরাই পরিতপ্ত হই হয়। ফলতঃ যে চিত্রকরের চিত্র নৈপুন্য থাকে,তাহাঁর ঝুলিকার দুই একটা টান দৃষ্ট করিলেই নমগ্র চিত্রের আভাস উপলব্ধি হওয়াও বিচিত্র নহে। উপস্তিত অসম্পূর্ণ বিষয়টী এই সকল বিষয়ে কতদুর সফলতা! লাভ করিতে পারিরাছে, মাজ্জিত বুদ্ধি সদর ব্যক্তিদের হৃদয়ই তাহার পরিক্ষাস্থল।

বুড়ারগ্রাম

1 শ্রীনবীনচন্দ্র মুখোপাধ্যায়!

২২এ পৌষ ১২৮৬

পিগুরেতে রব, পিঞ্জরেতে খাব, পিগ্রেতে বমি গাইব গান কখন হাসিব, কথন কীদিব, কখন থাকিব, করিয়া মান! কখন সরস স্ুধার লহরী প্রণয়-সাগরে ঢালিয়৷ দেহ, -_গাইব স্থরুচি মধুর মধুর, মাতাব তাহাতে বিরহ খিধুর, মাতা তাহাতে প্রণয় বাউর)_-অথবা যদিও ন1 মাতে কেহ নাই বা মাতিল। নিজেই মাতিব, নিজেই সুখের সাগরে ভাদিব, দিব না অপরে সখের ভাগ এই কণ্ঠরব, হবেন! নীরব, নাই বা হইল বীণা বেণু রখ, নাই বা হইল ললিত, ভৈরব) নাই ঝা! হইল বেহাগ রাগ। হাসিবে বঙ্গ ? হাস্ুক! তাহাতে হইবে না মোর হৃদয়ে দাগ! ভারতের ছুখে কাদিলে জায়, “গাইব করুণ” শুনিবে নিদয়_ বধির ভারতী(১)অলন বাঙ্গালি) কাজেই এখন পথের কাঞ্গালি! কাজেই এখন দাসের দাস! অকুত মাহ, তুল গৌরব, অটুট বিক্রম, অমূল বৈভব,

(১ ভারতবধীয়।

ভূবনমোহিনী প্রতিভা

কিছুমাত্র নাই হারায়েছ সব; শিখেছে কেবল লঘৃতা, ভীরুতা, বেড়েছে কেবল হৃদয়ে ত্রাস। শুনিয়া সে গান, কাহার কি প্রাণ কাদিবে নাক ? যদিই কাদিল-- এক বিদ্দু অশ্রু যদিই পড়িল-_ নক্ষত্র বিশেষে ভেকের মাথে, যদি দৈববোগে, পদার্থ সংযোগে, একটিও মতি জনমে তাতে ! যদিও বিহঙ্গী দুর্বল অবলা, বিহীন প্রতিভা, অবোধ সরলা) পরের আহারে পোষিছে উদর। শৃঙ্খল পীড়নে, ব্যথিত জীবনে, ত্রাহি ত্রাহি ডাক ছাড়িছে সঘনে, তথাপি যখন শুনিবে শ্রবণে £ভীম্ম কর্ণার্জুন বীর বৃকোদর আর্ধযবংশচ্ছবি_-কল্পনা করিব, পাণ্ব। রাঘব, মহ! মহাবীর» গুনিবে যখন, যোদ্ধবিবরণ, দেখিবে যখন সুছুরপ্বপন, দেখিবে যখন মানস নয়নে; নীল কাদস্বিনী আকাশ আসনে। (গাইষে তখন--) গঅস্থুরে নাশিতে, অমরে তুষিতে; রসাতলে দিতে মরত মেদিনী ; করে কাল অসি, থল খল হাসি, চপল! রূপসী, কপাল মালিনী,

ডুবনমোহিনী প্রতিভা

করে ছনুংকার, বলে মার মার, মাররে অস্ুরে) পলায় ! পলায়!

চেড়ীগণ সব, ঢালিছে আসব, ঠমকে চমকে নাচিছে ভায়। রুধির মেখেছে, রুধির পিতেছে, কুধির প্রবাহে দিতেছে সাঁতার) ছিন্ন শীর্ষ শব, ভেসে যায় সব, পিশাচী প্রেতিনী কাতারে কাতার?

মস্বনে নিম্বনে মলয় পবন, আহরি সুরভি নন্দন রতন, মন্দার সৌরভ অহৃত রাশি,__

মন্ররিছে তরু অটল ভূধর, দমিছে দাপেতে, কাপিছে শিগর! কাপিছে মেদিনী, রণ কুশলিনী, অরণা রজিনী বিকট হাপ-- ঘোরে রণ মাঝে, ঘোর রণ সাজে! ঘোর ঘন মাঝে চপলা খেলে ঘোর ঘন নাদে, মুহুমুছ “দে, দে, সুধা! দে স্থুধা দে সুধা দে” বলে!

উন্মত্তা উলাঙ্গী, ভয়দ! ভীমাঙ্গী র্পরে রুধির করিছে পান; বদনে না ধরে, ধার! বেয়ে পড়ে, কপোলে হৃদয়ে যেতেছে বান!

বীরের সঙ্গীত, বীরের মত, গাইব তখন পারিব যত, এই পক্ষপুট তুলিয়া উল্লাসে।

হবে প্রতিধ্বনি, প্রান্তর সাগরে, নদ নদী হৃদ ভূধর গহ্বরে, পবনে বহিয়৷ সে ধ্বনি সত্বরে, বিলয় ধরিবে অনস্ত আকাশে!

ভুবনমোহিনী প্রতিভা

শিখিড় তিমির হিমাদ্রি গুহায়, কদাচিৎ ঘদ্দি কেশরী ঘুমায়, কদাচিৎ বদি সে সঙ্গীত গুনে ভাঙ্গে তার ঘুম, উঠে বা জাগিয়াঃ তল্লাসে শিকার ক্ষুধার্ত হইয়া, (মুখের আহার খেতেছে কাড়ির। শৃগাল বায়সে, দেখিছে নয়নে ) তা হলেই হবে, তা হলেই যাবে সঙ্গীত পিপাসা জনমের তরে মিটিবে আমার, গাব নাক আর, রহিব বিহঙ্গী নীরবে পিঞীবে।

অকৃতজ্ঞ শুক

হায়। অকৃতজ্ঞ শুক কি বলিব তোরে? বেড়াতিস বনে বনে-_ ঝনজ-বিহঙ্গ-সনেঃ

কে তোরে ধরিল,__কে পুষিল সমাদরে ? কে ফুটায়ে তোরে আধি-- স্থুব্ণপিঞরে রাখি

--প্রতি দিন চাল, ছোলা কে দ্রিল সাদরে?

বল বল বল পাখী ! নল, সত্য করে?

ভুবনমোহিপ্ন প্রান্দিভা

সে দিন কি পাখা, তোর মনে আছে আর ? হণ পক্ষ, হীন বেশে ফিরিতেরে দেশে দেশে, বপিবার স্ান ছিল না তোনার ! হুর 1*যাদ ভয়ে বনে ডালে লুকাইয়ে__

--বাঁচাইতে আপনার ছুস্থ কলেবর, সেদিন কি পাখা, তোর মনে আছে আর?

মনে কি পড়েরে পাখী !--সে দিন তোমার ? কিঞ্চিৎ আধার-_লাগি__ _-জন্মারণ্য পরিত্যাগি-__ অনস্ত-সাগর-জলে দিয়েছ সাঁতার 1! কুলায়-রচনা জুরে, বনস্পতি পদে ধরে-__ _কীাদিয়া করেছ কত মিনতি আবার ! সেদিন কি পাখী, তোর মনে আছে আর 2

মনে ন। পড়িবে পাথী, সে দিন তোমার__ _যে দিন নিষাদ-দলে__ __বাসা ভেঙ্গেছিল বলে, --যে দিন শৃঙ্খলে বাধা গেছ বার বার,__

ভূবনমোহিনী প্রতিভা

যেদিন বিপাকে পড়ে-__ --ভারতের দ্বারে দ্বারে-. __ফিবিয়াছ, ( করিয়াছ কত শিষ্টাচার!) সে দিন কি পাখী,--তোর মনে আছে আর %

মনে ন। পড়িবে পাী,--সে দ্রিন তোমার ! সময় পেয়েছ বলে-_ _--সকলি কি গেছ ভূলে ?)

ভূলন। ভূলন।,--মনে কর একবার 1-- --সেই এক দিন, পাখী !-_ --আত্র-অটবীতে থাকি--

শ্রুতি জাগরিত করি, পদ শব্দ কার

গণিতে নিযুক্ত ছিলেঃ (বল একবার ?)

সেই এক দিন শুক!--ভেবে দেখ মনে। ভারত-শিশুরা তোরে-- _ ক্রীভার-সামগ্রী-করে-

খেলিক়াছে কত খেল, ( কেন! তাহ! জানে ?) পিঞ্জরে আবদ্ধ রতে, ঈাডে সে ছোলা খেতে,

যে বুলি বলাত, তাই বলিতে সঘনে।

সেই এক দিন শুক,_ভেবে দেখ মনে !!

ভূবনমোহিনী প্রতিভা

এক দিন আত্মা রাম ছিলে তুমি ধার-_- কাটিয়া শৃঙ্খল পাখী! বুলি বল! দূরে রাখি__ সর্বনাশ হেতু চিস্তা করিতেছ তার। তার হৃদি-মধ্যে পশি, আকঠ শোণিত শোষি, উদর পুরণ তবু হল না তোমার? ধন্য রে কৃতজ্ঞ তোর পদ্দে নমস্কার

হিমালয় বিলাপ |%

কাদ কেন হিমালয়--ভারত গৌরব? কি ছুঃখে গলেছে তব প্রশান্ত হৃদয় ? কি লাগি মলিন কান্তি? কোথায় সে সব-- প্রকৃতির অন্কুপম ভূষ] মণি-ময় ? কোথা শ্বেত কাস্তে রবি প্রভা মুখরিত-- আদরের হাসি টুকু? বীর গরবিত-_

--বাক্য আন্ফালন কোথ| ? (অধিত্য কাতলে যবে -অবিশ্রান্ত বাসু স্বন্‌ শ্বন্‌ রবে

ংশ রাজী দুলাইয়। চতুর্দিকে চলে, ) কেন অশ্রু প্রবাহেতে ভাসাইছ সবে?

১২৮১ সালের আহিনের ভয়ানক বৃটীক। উপলক্ষে লিখিত।

ভূবনমোহিনী প্রন্ভভা

সম্বরহ আখি নীর কেদনাক আর

অশ্রু আ্োতে ভেসে গেল ভারত তোমার! তু

তব চক্ষে ঝর ঝব ঝরি শত ধারা_-

নির্ঝর গ্রবাহ বহি অতি খর আোতে,--

ভারত . টিনী রাজ্জী ২য়েছে অধর!

গঙ্গায় ধরে না ভল বহি অন্য পথে

--ভাসাইল ছূর্ভ। 4নী ভারতের সব,

_ভগশেষ যাহা ছিল দরিদ্র বৈভব!

(অভিমান করেছ কি কাহারো উপরে ?) অথবা (কেহ কি করিয়াছে অপমান ? ) মহাকায়! তবে কেন বিষাদ-সাগরে-- ঢালিয়াছ অঙ্গ--হইয়াছ অপমান ? প্রলয়ের গুরু শ্বাম বহে কেন তবে? বিষম ছুঃখ তব কত ক্ষণ রবে?

গেল যে ভারত তব নিশ্বাস বাধুতে ! কাপিতেছে ধরাতল-ধরাধর যত অঙ্গ হীন হণল তব দারুণ রবেতে ! অতি বড় অন্রালিকা বৃক্ষ কত শত-_ উপাড়িল, চিহ্ন নাই ছিল কোন স্থানে 1) একি হিমালয় ! এই ছিল নাকি মনে?

ভূুবনমোহিনী প্রতিভা

কি নিগ্রহ ভারতের অদৃষ্টে ঘটেছে! মহামারি-_মন্বস্তর।--রাজ শোষক তা, বত কিছু অমঙ্গল নকলি হু'তেছে 1) আবার সর্বনাশ (হায়রে বিধাতা !)-- ছিল যে ভারত ভূমি জীব লীলা স্থলী-_ স্বর্গীয় সুখের স্থান, (গেছে সে সকলি !)

তবু ছুট শীর্ণকায় সুস্বর্্ু বালক-_ জননীর মমতায় মাটি কামড়িয়! ছিল পড়ে-__তাও বুঝি যায় পর লোক ! হে পাষাণ! একেবারে পাসরিলে মায় ? কেনইবা অকারণে দোষি হিমালয়ে ? হিমালয় ভারতের প্রশক্ত হৃদয়ে,__

চির দিন মহ! স্তুখে আধিপত্য করে_- এবে সেই ভারতের দেখিরা ছুগতি, অর্থ গ্প্, পিশাচের পাপ ময় কবে। হরেছে ছুঃখিত, তাই কাদে মহামতি | (কাদে ছঃখে ক্রোধে শুরু নিশ্বাস ভীষণ 1) -কৈদনাীক হিমালয় ভারত-জীবন।

নি হরেছ প্রাচীন পিতঃ ! শক্তি নাই গার, (তবে কেন শোক ছুঃথ কর অকারণ ?)

ভূবনমোহিনী প্রতিভা

তোমার সম্ভানগণ অতি শীর্ণ কার,

আলস্যের স্রোতে তার ঢেলেছে জীবন !

আপনার উদরান্ন অতি কষ্টে করে

দাস বৃত্তি ( তদভাবে ভিক্ষা! দ্বারে দ্বারে!) ১০

গৃহের সর্ধন্ব ধন একমাত্র নারী।

উন্নতি,_-উন্নত আশা, তাহারি চরণে__

_দিয়া পুষ্পাঞ্জলি-_-সবে হয়েছে ভিখারী

দাসত্ব শৃঙ্খল ভীম বন্ধন পীড়নে

অল্লাফু হয়েছে, সবে-সল্পবীধ্য বল !

সে সবার মুখ চাহা নিতাস্ত বিফল !) ১১

পরছুঃথে দ্রব হয়ে-_-পরের মঙগল-_ প্রাণপণে সাধি পূর্বে যত কীন্তি নিধি,__ পৃথিবীর যশোরাশি লডেছে সকল ভারতের মুখোজ্বল আছে অদ্যাবধি ! এখন অভাগিনী জননীর কফোলে-_

প্রসন্ন অদৃষ্ট যত পুত্রগণ থেলে”_ ১২ প্রকৃত শ্রদ্ধার অর্থ দয় সম ধনে,

--জানে না চিনে না তারা গরবের দাস! গৌরব প্রত্যাশী হয়ে (গৌরাঙ্গ চরণে__. আজ্ঞাবহ !) অনুরোধে করে অর্থনাশ। ন্যায়ান্যার নাই আর, ঘটেছে বিষম ! (মার কাট-__দেছি পদ পর্পবমুদারম্! )

ভুবনমোহিনী প্রতিভা ১৯

৯৩ নাই স্থথ তবুপিতঃ! সম্থর রোদন, আছ তুমি বহুকাল, রহিবে অনস্ত কাল। (অবস্থা নহেক কভু স্থায়ী চিরদিন ।) কথন অসীম সুখ, কভু নিদারুণ দুখ সম্রাট সে ভিক্ষা করে ভিক্ষুক রাজন। অবশ্য উদ্দিবে কভু সৌভাগা তপন ১৪ চিরদিন সমভাবে যাবে না যাবে না। এই মরু ভূমি পরে কমল ফুটিতে পারে! বীর প্রস্থ ভারতের এদশ] রবেনা অবশ্য কালেতে কেউ উঠাবে প্রবল ঢেউ অবশা নাশিবে ভুঃখ, €( ভেবনা ভেবনা 1) চিরদিন সমভাবে যাবে না যাবে না।

অলস-যুবক কত নিদ্রা যাও ভাই, উঠ একবার ! সুত্র বৎসর গত, আর ঘুসাইবে কত ?

ভূবনমোহিনী প্রতিভা

অভাগী জননী বসি শিয়রে তোমার তোমার অবস্থা দেখে -কাদিতেছে অধোষুখে মনোছুইখে মাটি হ'ল প্রতিমা! সোণার ? উঠ উঠ উঠ ভাই! উঠ একরার!

চেয়ে দেখ, জননীর দুর্দশ। কেমন ! ছুরস্ত দস্থ্যরা আসি, গৃহের ভিতরে পশি-__ অর্থলে!ভে করিতেছে অসহ্ পীড়ন! মায়ের গায়েতে যত ছিল মণি, মকরত ; পাপাত্মা পিশাঁচে তাহা করেছে লুণ্ঠন দেখ দেখ দেখ ভাই! মেলিয়! নয়ন

তি

উঠে বস ভাই ! দে মায়ের বন্ত্রণা! স্তখলেশ নাহি আর ভইয়াছে অস্থি-সার দুঃখে মুখে কথা নাঈ,--যেন দীন হীনা। ভানিছে নয়নজলে, দ্ঃখের বেদনা বলে-- নাহি হেন জন, হায়! (তোম| সবা বিন।।) উঠে বস ভাই ! কর মায়ের সাস্বন1।

ভূবনমোহিনী প্রতিভা] ১৩

কত কষ্টে স্তন দিয়ে আম! সবাঁজনে, --পালিয়া করেছে বড, আজি তার কার্য কর ; একতার ফুলে হার গাথি সযতনে $-- ভক্তিতে গলায় পর, সাহদ-পতাক1 ধর, মায়ের যন্ত্রণা আর সহেন। জীবনে ! উঠ প্রিয়তম"! আর নিদ্রা ষাও কেনে ? শুফ অর্গ জননীর স্তনে ছুপ্ধ নাই» আমাদের ছোট যারা, অজ্ঞান বালক তারা, ক্ষুধায় কাতর, (খেতে চাহিছে সদাই, ) মায়ের অঞ্চল ধরে বিনায়ে রোদন করে, দরিদ্রা জননী ।-_(খাদ্য কোথ! পাবে ভাই?) লুঠেছে দস্থ্যতে আর কিছু মাত্র নাই!!

হায় ! কি বলিব, ছুঃখে না সরে বচন। এক দিন ভূমণ্ডলে বপ, গুণ, বাহু-বলে

অদ্বিতীয় ছিল যার প্পরিক্ পুত্রগণ ;--

১৪

ভূবনমোহিনী প্রতিভা

অনন্ত গৌরব যার-_

মোতোময় পারাবার, হিমাত্রি কীত্তির স্তস্ত আছিল তখন | এখন সে সব কথ! নিশার স্বপন ![

জন্মেছি সকলে এক জননী গর্ভেতে। কিন্তু কি বলিব হায়! বলিবার কথা নয়ঃ | (পক্ষপাত দোষে বে গেলে অধংপাঁতে 1) যদিও অবলাগণে-- বমিবে ন! উচ্চাসনে) যদিও ছুর্ববল] নারী অস্তঃপুর হতে বাহির না হবে,_-ইহা জানহ ত্বচিতে-___

তথাপি শিক্ষার দোষ দিয়ে মনে মনে-_ অভাগী সোদ্রাদিগে অজ্ঞান আঁধার কুপে

ফেলায়ে রেখেছ বীধি স্বেচ্ছাচার গুণেঃ কেন বল দেখি মোরে £ এরূপ জন্যায় করে

কি কাধ্য সাধিবে ভাই শুনি তব স্থানে?

বলার ছুর্দশ! যাবে কত দ্রিনে ?

ভূবনমোহিনী প্রতিভা ১৫.

কন্য। পুত্র জননীর সকলি সমান পুত্রেরা শিক্ষিত হবে, কন্যা দাসী বৃত্তি পাবে১_- একি কথা ? এই নাঁকি বিচার বিধান ? এই ফি বিচার সব, এই কি পৌরষ তব?

কথা শুনিলে নাহি ভাব অপমান £-- (তোমার সোণার টাদ দাসীর সন্তান?) ৯০ আরে! বলি,_-শুন ভাই, হও অবহিত অবলা শিক্ষিতা হ'লে উভয়ে মায়ের কোলে

খেলিবে বিষম খেলা) ইহাঁও নিশ্চিত | বিষত্বী পুরুষ জাতি, | হৃদয় কঠিন অতি,

জননী উপেক্ষি,__-দেখে জীবনের হিত !

অবলা গলিলে হুঃখে, করিবে বিহিত !

১১

ছিছি! কি বলিব আর তোম। সবাকারে ? সিংহিনী গর্ভজ হয়ে শৃগাল-সাহস লয়ে

কুন্কুরের ভয়ে বাস করিছ বিবরে ?

১৬

ভূবনমোহিনী প্রতিভা

বে করেছে সর্বনাশ, তার তুমি ক্রীতদাস? সে তোমার নাকে দড়ি দিয় লয়ে ফিরে। ছিছি! ক্কি বলিব আর তোম। সবাকারে ? দরিদ্রযুবক। চন্দ্রমা শালিনী নিশা গভীর স্থুমতি, নিশ্পল নীলিমাকাশে স্থধাংশু নক্ষত্র হাসে, হাঁসাক় পার্থিব নৈশ শোভায় প্রক্কতি। ভূধর, প্রান্তর, বন, নদ, নদী, প্রঅবণঃ- হাদির তরল্েে ভাসে বিকাশি মুরতি হেসে পাগলিনী হ'ল ধর! রূপবতী ! হ্‌ পাদপ পাতায় আর আোতম্বতী কুলে-_ ধবল ফুলিতাকাশে, সোহাগে খদ্যোত হাসে, শশীমুখী সন্ধ্যামণি হাসে মন খুলে। মৃছ টৈশ বায়ু ভরে-_ আদরে গলিয় পড়ে, . ধবল তুহিন কণা মুক্তাহার গলে। সব থাকিবে কোথা নিশি পোহাইলে ?

ভূবনমোহিনী প্রতিভা

তত যে ভূধর হতে নির্কর নিম্মল__ বারি বিশ্ব ভেসে যায়-- চক্দ্রিমাতে দীন্তি পায় "পলকে মিশাবে, হবে যে জল সে জল। গাঢ় জলদের ঘটা, চল সৌদ্দামিনীচ্ছটা, গম্ভীর অশনি; ঘোর বৃষ্টি অবিরল হইলে সহসা; কোথা যাবে সকল? যে নৈশিক বাধু মৃদুল ছুলিয়_- ছুলাস় বৃক্ষের পাতা,__ ছুলায় বনের লতা__ ছলায় শারদী নদী থাকিয়। থাকিয়। মৌধ গবাক্ষেতে পশি, স্বেদসিক্ত মুখ শশী কার মুছাইছে অই আদর করিয়া ? যে মৃছুলানিল মৃছল ছুলিয়া ?

চঞ্চল শঠের প্রেম হীরক রতন, উপরে অমিয়ময়, গোপনে গরল রয়; আপাভঃ সুখের শেষে শংহারে জীবন

১৮

ভূবনমোছিনী প্রতিভা

পৃথিবী কম্পিত করি

ভূধর উপাড়ি পাড়ি গম্ভীর কলোলি-_নীল সাগরে যথন-__ ভীম ছুর্ণিবার ঝড় হবে নিমগরন--

তথন কোথায় রবে সব সম্পদ? ধীরে কি বনের লতা! ধীরে কি গাছের পাতা ধীরে কি গবাক্ষে লয়ে সুরভি আমোদ-_ ছুলিবে ছুলাবে সবে ? কোথায় নিবার়ে যাবে-_ কৌমুদী চক্জ্রিমা হাসি অমৃত্ত আস্পদ ? (মেঘেতে মিশাকে যাবে হইবে বিপদ!)

হেসনা হেসনা, এত হাসি ভাল নয়।

নিশ্মীল হৃদয়াকাশে

অমনিই হেসে হেসে আঁশার চন্দ্রমা হয়েছিল সমুদয়!

সেই দিন সাধ করি

হেসেছিনু মুখ ভরি, অমনি আধার হ'ল পোড়। হৃদয়! (তাই বলি এত হাসি হাস! ভাল নয়!)

ভূুবনমোহিনী 'প্রতিভা। ১৯

এই যে মধুরা নিশা (নিত্রিতা ধরণী !) নিদ্রা আসিল না চখেঃ কি ভাবিছ মনে! ছুখে, কি ভাবন। ? (কাহারে ব! বলি সে কাহিনী!) হৃদয়ে তরঙ্গ উঠে হৃদয়ের মধ্যে ছুটে, হৃদয়েই লয় হয় আপন আপনি ! কে শুনিবে অভাগার ছুঃখের কাহিনী ?-_ সংসার তড়াগ মাঝে জীবন মৃণালে-_ সোদর কমল নিধি, (প্রতিভার প্রতিকৃতি ) বিদ্বান্‌ আদর্শ হয়েছিল বত্ব বলে। বিকাশ হ'তে না হ'তে, কালের তুফান উঠে, জীবন বন্ধনে মোর ডুবাঁলে অতলে! সুখের প্রন্দীপ নিবাইয়! দিল কালে !

৯৩

(আশ্রয় বিহীন |) লয়ে শৈশব জীবনে ! অপোষ্য পাষাণ গলে সংসার সাগর জলে

ডুবাইনু দেহ; ভাবী উৎকর্ষ রতনে ;

ভূবনমোহিনী প্রতিভা

হৃদয় উৎসাহ-হীন, হুতাশে শরীর ক্ষীণ, কি করিব,--কি হইবে,যাব কোন্‌ স্থানে-

১১

ভাবিয়! কাদিছি নিত্য বসিয়! নির্জনে ! দরিদ্র-মানব-চিত্ত-মকুভূমি-প্রায়। আশা-বারি-বিন্দু নাই-- আশ্রয়-পাদপ নাই, ভিক্ষার আকাশে খণমার্ভগু পোড়ায়! অনস্ত-অভাব-মাঠে-_ দুরাশ! পাবক উঠে, দুশ্চিন্তা-বালুকা-কণা ছতাশে উড়্ায়! (দরিদ্র মানব-চিত্ত মরুভূমি-প্রায় 1)

সোথার-কনিষ্ঠ মোর; ( ননীর-পুতুল-- উত্তাপে গলিয়া যাষ 1) ঘুমালে জাগান দায়, নিতাস্ত শৈশব,--শ্রিক্-জীবনের মূল বিদেশে পরের ঘরে পরের দাসত্ব করে ! | শিক্ষার আশায়, হায়! বিধি প্রতিকূল ! সোণার কনিষ্ঠ মোর. (ননীর পুতুল!)

ভূবনমোহিনী প্রতিভা ২১

১৩ সকল সুখের স্রোত শুকায়ে গিয়েছে! তবু খুঁজে দেখি দেখি,

কোন স্থুখ আছে নাকি ? আছেইত ? মেরু ভূমে কমল ফুটেছে!)

একটি বিশুফ নালে-_-

-_ছুটি পুগুরীক ছুলে,_- স্থুবাসে পুর্ণিত প্রাণ কাড়িয়া লতেছে। চিরতপ্ত মরু ভূমে কমল ফুটেছে !

১৪ কত দিন মরু ভূমি করি পর্যটন-_

-মুগ-তৃষ্চিকার ফাদে

_শুফ কণ্ঠে কেদে কেদে-_ --এখন পেয়েছি এক সুখের-সদন !

যখন যন্ত্রণা-ভরে-_

প্রাণ ছাড় ছাড় করে, পৃথিবী, আকাশ সম করি দরশন। তখনি আকাশে আক! সুহৃদ রতন-_

১৫

--আমার যন্ত্রণা-ভার বহনের তরে, গলিয়া আমার ছুখে রোদ ন-মাথান-মুখে_-

--বলে কত কথ!,__-অতি লেহ্ময় শ্বরে।

২২

ভুবনমোহিনী প্রতিভা

পলকে শতেক বার-_ হেরি মুখ শশী তাঁর, সকল হৃদয়-ব্যথা যায় মোর দূরে, (কেবল রেখেছি প্রাণ স্ুহ্ৃদের তরে 1!) ১৬ সোণার প্রতিমা! মোর হৃদকের নিধি,-- লজ্জার লেপনী দিয়ে__ সরলত। মাথা ইয়ে, নির্জনে নিন্মাণ বুঝি করেছিল বিধি! কোমল-হৃদয়৷ সতী, প্রণয়ের প্রতিকৃতি ; দরিদ্র আনন্দময়ী-__(সোহাঁগের নদী 1) _-তোণার প্রতিমা মোর-__-হৃদয়ের নিধি! ১৭ জমি অনাবৃত দেহে-_হিমাণীর শীতে; নিদাঘ তপনে পুড়ে__ ভিক্ষা করি দ্বারে দ্বারে__ _দিনাস্তে যদ্যপি পাই সে সুখ দেখিতে ; দুর্গম কাস্তারে থাকি” যদিও কাস্তারে দখি, কারাগারে বদ্ধ যদি রই তার সাথে; (তথাপি স্বর্গের সুখ তুচ্ছ ভাবি চিতে 1)

ভুবনমোহিনী প্রতিভা ২৩ জন্ম ভূমি !

এই কি, সে প্রক্কৃতির__

--শোভার সদন পল্লী, পবিত্রতা সার ? এই কি, সে, স্থখ-ধাম, (ন্বর্ণ-গরীয়সী নাম )

_-অভাগার জন্ম ভূমি ম্ষেহের বাজার? এই সেই স্থবিমল-_ শৈশবাভিনয় স্থল ?-_

(জুথে সুখ, হুঃখে সুখ, সুখের আধার ?)

এই স্থানে ছিল, চির আনন্দ অপার ?

চিএ বহিত কিঃ এই স্থানে

__অন্ুপম সরলতা সুধা তরঙ্গিনী ? এই স্থানে আত্ম পর_- -ছিল নাক পরস্পর %

কি স্বজাতি, ভিন্ন জাতি সবে এক জানি _-ভাই বলে, দাদা বলে-_ মধুর সন্বন্ধ তুঁলে__ |

-ডাকিত, (জুড়াত কর্ণ সেই কথ শুনি ।)

সেস্থান কি এই ? নো ন৷ ম্বপ্লের কাহিনী 1)-_

-বম্বপ্রের কাহিনী যদি__ না হইবে অহে। | তবে কোথায় সে সব--

২৪

ভূবনমোহিনী প্রতিভা

_নয়ন নন্দন অতি, অসম প্রকৃতি ভাতি ? নাই, (তাই হৃদ্দি তন্ত্রী নিদ্রিত নীরব !) কোথা সেই সরলতা ? সত্যের বন্ধন কোথা! ? সমাজ, একতা, আর বিষয়, বৈভব-_ কিছু নাই-__-(আছে মাত্র হাহাকার রব!) হায়! এই হিন্দু কুলে-_ ধর্মের বন্ধন এত ছিল দৃঢ়তর ;- যে জাতি ধর্মের তরে-_ আপন! উৎসর্গ করে করাল-কুপাণে ক্ষত করি কলেবর, দিয়েছে শোণিত শুনিঃ জীবন নয়ন মণি _ পুত্রনিধি ভাঁসায়েছে সাগরে বিস্তর ! ধর্মের বন্ধন এত ছিল দৃঢ়তর !--

গু

--ছিল এত দৃঢ় তর-_ ধন্মের বন্ধন,২-যবে সংসারের স্থখে- -দ্দিয়ে জলাগুলি সতী, নির্ভয়েতে কুলবতী-_ কামশাখ। হাতে করি ছাসি হাসি মুখে,

ভূবনমোহিনী প্রতিভা 4 ২৫

-ম্ৃত-পতি কোলে লয়ে চিতাগ্রিতে প্রবিশিয়ে-- --সহমৃত1 হ'ত হায়,ধর্্মের বিপাকে 1 _-আম্শাখ। হাতে করি হাসি হাঁসি মুখে ! রি মরি, সেই মনোরমা-_ --সোণার প্রতিমা, আহা, যুবত্তীও নয় 1) খেলা ধূলা বালিকার-__ __ছিল মাত্র অলঙ্কার! কে জানিত তার মধো লুকান প্রণয় ? : _ লুকান প্রণয় ছিল, পরিণয় কবে হল ? কে জানিত মুকুলেতে মধুর সঞ্চয় £ (অকস্মাৎ চিনা ধূমে অন্ধকারময়।) আহা ! সেই মুণয়রী,-_ কাপালী ভৈরবী প্রেমে হয়ে মুগ্ধমতী, সোণার সংসার ত্যজে ভীষণ শ্বশান মারে,.- --আত্ম বিসর্জন তরে গিয়েছিল সভী ! কোন্‌ জাতি কোন্‌ দিন-- হয়ে হেন পরন্মাধীন- আত্ম সমর্পণ.কার্ধো হয়েছিল ব্রতী ? তেরু বীরাক্কল! নম্ম আর্ষেযর ষস্ততি ?).

ভূবনমোহিনী প্রতিভা

পৈশাচ তান্ত্রিক রীতি-_ যাক রসাতলে,_-তায় পরিতাপ নাই। ংশের কলঙ্ক ওই আছে আর উহা। বই,__ সেই পাপে-সেই শাপে এত কষ্ট পাই। কৌলীন্য কি ভয়ঙ্কর! জ্ঞানান্ধতা অন্যতর, বাল্য-পরিণয়-পাপে পারাপার নাই। কল্পিত-ধর্ম্মের সুখে শতবার ছাই ! দেখ, ভগ্র-হৃদে-_ _-অনস্ত-বিষাদ-সিক্তা অনৃঢা-যুবতী, লজ্জা-ছুঃখ-অভিমানে দীন-হীন-ক্ষীণ-প্রাণে -_অশ্রুনীরে ভাসে অই কাঞ্চন-ব্রততী ! কারুকার্য বিধাতার, পরিণয়-পুষ্পহার»-- -পরিল নখ গলে জন্মে! অরে ছুষ্টমতি__ --দেশাচার! তোর তরে এবপ নিক্তি !!

দেশাচার ! তোর তরে-_ -লোণার ভবক, দিয় কুন্থমের কলি,--

'ভূবনমোহিনী প্রতিভ1

-যতনে নির্দিয়া বিধি, দেবের দুর্লভ নিধি, _ সুমূষুরি পদে ওই দেস্স পুষ্পাঞ্জলি ! (দেয় পুষ্পাঞ্জলি হায়! লম্পট দন্যুর পায় 1) ভিথারী কি চিনে রত্ব ? রেত্ব হারাবলী-_ __বানরের গলে তুই আদরে পরা'লি ?) ৯৯ তুই রে নিষ্ঠঠর, তাই-- -দ্বারুণ দুঃখের ভাগী বঙ্গের বিধবা !! অভাগীর স্বামী নাই, মৃত্যু নাই বাঁচে তাই, উজাইক্া স্থখ ব্রত ; সুখময় দিবা গেছে চিরকাল তরে, নিরাশায় শুন্য ঘরে__ শূন্য সংসারের মাঝে নিস্তব্ধা নীরবা, _-মাটীর পুতুল যেন বঙ্গের বিধবা !

হি

প্রকাশি হঃখের কথা-_

_ বলে গোট্টাকত, তার উপায় নাই?) নাথের সৎকার করে অভাগিনী এলে ঘরে,

বেশতৃষ! কেড়ে নিতে বিব্রত সবাই !

২৮

ভূবনমোহিনী প্রতিভা

(মুণাল কণ্টক বিনে ভাল দেখাবে কেনে ?) শিশিরে নলিনীদল ভাসিলে সদাই-_ থাকে কি লাবণ্য ? (অহ! ! ছুঃখে মরে যাই 1) ১৩ বিষম-শোকের--বেগ-- -ছুর্ণিবার, (তবু হবে দাসীত্ব করিতে 1) সংসারের কার্ধ্য-ভার-_ -সমন্তই বিধবার! (অনাথার বীচা মাত্র, যাতনা! সহিতে 1) অঙ্গেতে মলিন-বাস, আলু থালু কেশ-পাশ ; মলিন-মুখ-চন্ত্রম। দুঃখের পীড়াতে ! (কেউ নাই-অভাগীর সংসার মাঝেতে 1) ১৪ যে মলিন মুখে --দ্বাদশ বর্ষের ওটি বিধবা বালিকা !-_ --পিপাসা কাতরা অতি ; মাটিতে অঞ্চল পাতি-_ শুয়েছে ছুঃখিনী, যেন, (শুখান লতিকা1 1) অহহ ! তুমুল ঝড়ে. ফুল-দল ছিন্ন করে-_ পথে ফেলায়েছে শূন্য করি বৃস্তশাখা, (কেউ দেখেনাক ওটি নিতান্ত বাঁলিক! 1)

ভূবনমোহিনী গ্রতিভ!। ২৯

১৫ খেলার, বয়স ওর ! একাদশী করিবার সময়ত নয় ! দেশাচার পাপাচার ! তোর এই অবিচার ! তোরি তরে পিতা মাতা-সবাই নির্দয় ! তোরি তরে বঙ্গভূম-_ -হইল রে সম-ভূম, তোরি কার্ষেট দুঃখ বজ্ে ফাটেরে হৃদয় ! ঈশ্বর থাকেন যদি, হুবি শীত্ত ক্ষয় 1) ১৬ দয়াবান্‌ রামমোহন-__- --গুণের সাগর, ছিল ভারত বান্ধব তাঁরতের দশ। দেখে, গলিয়া দারুণ ছুখে-_ প্রকাশিয়া চির-কীর্ডি-কুস্থুম সৌরভ-_ -ত্রিদিবে পেয়েছে স্থান প্রভূত সম্পদ মান __পাক্‌ সেই বংশাবলী যেখানে যে সব। দয়ার-সাগর ছিল ভাঁরতবান্ধব !

১৭

আহা! ! সেই সদাশয়,_ যেই ক্কৃতজ্ঞত পাশে বাধি ভারতেরে,_

২৮

ভুবনমোহিনী প্রতিভা

(যুণাল কণ্টক বিনে ভাঁল দেখাবে কেনে ?) শিশিরে নলিনীদল ভাসিলে সদাই-_

থাকে কি লাবণ্য ? (অহে! ! ছুঃথে মরে যাই 1)

১৩ বিষম-শোকের--বেগ--

-_ছুর্ণিবার, (তবু হবে দাসীত্ব করিতে 1) সংসারের কাধ্য-ভার-_ -সমস্তই বিধবার!

(অনাথার বাঁচা মাত্র,যাতনা সহিতে 1) অঙ্গেতে মলিন-বাস, আলু থালু কেশ-পাশ

মলিন-মুখ-চন্জ্রমা ছুংখের পীড়াতে !

(কেউ নাই-অভাগীর সংসার মাঝেতে 1)

১৪ ধঁ যে মলিন মুখে__

-_দ্বা্শ বর্ষের ওটি বিধবা বালিক11-_ -পিপাসা কাতরা অতি ; মাটিতে অঞ্চল পাতি--

গুয়েছে ছুঃখিনী, যেন, (শুথান লতিকা 1) অহহ ! তুমুল ঝড়ে-_ ফুল-দ্ল ছিন্ন করে-_

পথে ফেলায়েছে শূন্য করি বৃস্তশাখা,

(কেউ দেখেনাক ওটি নিতান্ত বালিকা 1)

ভূবনমোহিনী প্রতিভ1। ২৯

রি ৯৫ থেলার. বয়স ওর ! একাদশী করিবার সময়ত নয় ! দেশাচার পাপাচার ! তোর এই অবিচার ! তোরি তরে পিতা মাঁতা-সবাই নির্দয়! তোরি তরে বঙ্গভূম-_ --হইল রে সম-ভূম, তোরি কার্ধে? ছুঃখ বজ্ে ফাটেরে হৃদয়! ঈশ্বর থাকেন যদি, হবি শীঘ্র ক্ষয়!) ১৬ দয়াবান্‌ রামমোহন-_ --গুণের সাগর, ছিল ভারত বান্ধব ভারতের দশ দেখে, গলিয়া দারুণ ছুখে-_ প্রকাশিয়া চির-কীন্তি-কুস্থম সৌরভ-_- _ত্রিদিবে পেয়েছে স্থান প্রভূত সম্পদ মান__ _-পাক্‌ সেই বংশাবলী যেখানে যে সব। দয়ার-সাগর ছিল ভারতবান্ধব !

১৭

আহা! সেই সদাশয়,__ -_যেই কৃতজ্ঞতা পাশে বাধি ভারতেরে,__

৩৬

ভূষনমোহিনী প্রতিভা

গেছে চিরকাল তরে, কোন্‌ উপকার করে-- শোধিব সে খখণ-রাশি ; (কি আছে ভাঁগারে 1) দরিদ্রা ভারত মাতা ! ধশ্বর্ধ্য সম্পদ কোথা-_ পাইব আমর1)--তবে,_(অস্তরে অস্তরে__ আশীসিব, যত দিন থাকিব সংসারে !) ১৮ থাক্‌ তুই, দেশাচার তন্দরপ উন্নতমন! কেহ হয় যদি, যদি পায় কোন দ্বিন, দেখে, এই দীন-হীন-_

_ভারতের অশ্রুনীরে বহিতেছে নদী__

তাহলে উপায় হবে ;

তোর দর্প কোথা যাবে! (নিন্দুকের সর্বনাশ সাধিবেন বিধি |) অধঃপাতে যাবে,--যেই হবে প্রতিবাদী |

১৯

হায়! মোর! দীন হীন ! অশ্রজল ভিন্ন আর কি আছে সম্বল?

তবু জন্মভূমি তরে,

এই বঙ্গ পারাবারে-_

. --সহিব তুমুল ঝড় (রহিব অটল 1)

ভূবনমোহিনী প্রতিভণ। ৩১

যেজন ইহাতে আছে-_ বিকাইব তার কাছে,

যে জন তরঙ্গ দেখি ন। হবে চঞ্চল!

(রহিব অটল,--প্রিয় ! রহিও অটল ।)

দু কি বলিব, প্রিয়বর !

ভেঙ্গেছে চাদের-হাট-_-সাধের-বিপণী (বিন। ছুঃখ হাহাকার-_ কি* আছে সমাজে আর ?)

_ আছে মাত্র গোটাকত বিধবা রমণী! ভগ্র-গৃহ,__ভিটা সার-__ শর-পুষ্প শোভা! তার,

শুদ্ধ বায়ু বংশারণ্যে বহিছে নিঃস্বনি !

(ভেঙ্গেছে চাদের-হাট, সাধের বিপণী 1)

শৈশব স্বপন আজ কেন অকম্মাৎ স্থদূর শৈশব ন্বপ্র হইল স্মরণ ? দারিদ্র্য অনল যার, হৃদে জলে অনিবার, সারের কাধ্যশ্রমে ক্লাস্ত অন্ুক্ষণ ! ভয়ঙ্কর খণ দায় প্রতিবাসী শক্র তায অস্থির উন্মত্ত প্রায় হয়েছে যে জন! সে কেন দেখিল ন্বর্গ সুখের শ্বপন?

৩২

ভূবনমোহিনী প্রতিভা

বছদিন ঘন ঘটা, ছুর্য্যোগী গগণ আর আধার ধরণী,__ যে জন দেখেছে হায়! ক্ষণস্থায়ী চপলায় কি সুখ? তাহার মাত্র ধাধে আখি মণি; যে পথিক দিক ভ্রমে, নিদারুণ পথশ্রমে প্রাস্তরেতে ক্রাস্ত, তাহে তমিআ্রা রজনী, আলেয়। প্রতারে তারে কেন তা না! জানি ! হায় ! সে সুখের দিন সময় সাগর গর্ভে হয়েছে মগন। নাই সে অবস্থা আর, নাই সঙ্গী খেলিবার, নাই জননীর কোল---্বর্গ সিংহাঁপন ! বসন্ত কুসুম রাশি, শরতের পুর্ণশপী, মলয়ার বায়ু, গঙ্গীজল সম মন ছিল যে পবিত্র, এবে চিন্তার ভবন! হুঃখাঘাত প্রতিঘাতে-- নহে ত। কোমল কিসলয় সম আর! নছেত পাষাণ মত, তা হলে ফাটিয়া যেত, কি জানি কেমন তবে অস্তর আমার ! হৃদয় ! কিসের তরে, - বিষাদ সাগর নীরে, ঢেলেছ পবিত্র মুর্তি তুমি আপনার ? ভোগ তৃষ্ণা, অবিতৃপ্তি আছে কি তোমার ?

ভূবনসোহিনী প্রতিভা ৩৩

তাও নাই, তবে কেন-_ . যে সংসার ছিল মোর প্রমোদ উদ্যান ছিল শাস্তি সুখ ধাম, এবে তার পরিণাম শ্বাপদ সম্ুল ভীম গহন সমান? জদয়ের প্রিয়তর, নয়নের জ্ীতিকর, কুস্ুমিত লতাকুপ্ত ফলে নম্রমান ছিল, তাঁও,এবে বিষ বল্পরী বিতান ?

কেন এত ভালবাসি ?__ রর কেন এত ভালবাসি--

এতগুলি চিত্র মাঝে ওই ছবিটিরে ? ক্ষুধা, তৃষ্ণা নিদ্রোহার পরিহরি বারম্বার___

_দেখিতে বাসনা কেন হতেছে ওটিরে ? এই স্থানে নিত্য থাকি-- --বিবিধ বিধানে দেখি,

তবুও দেখার ক্ষুধা মিটিল না অন্তরে

€এ ক্ষুধার শান্তি বুঝি, হবে না সংসারে ?)

যেই দ্রিন হ'তে অই চিত্রখানি দেখেছি,

সেই দ্িন হ'তে মন-_-অইথানে রেখেছি মনে বড় ইচ্ছা করে, একঝার হাতে করে-__

৩৪

ভূবনষোহিনী প্রতিভা

_দেখি অই ছবিখানি)-_বাখি হৃদি মাঝারে | (প্রতিবাদী দ্েশাচার দিবেন! তা আমারে 1)

পরিষ্কার ছবিখানি ;__- __-একবার স্পর্শ মাত্রে মলিন হইবে!

অতি যত্বে রাখিয়াছে,

যাবন! উহার কাছে হীরক-ফলকে ক্ষণে কলঙ্ক,স্পর্শিবে !

প্রতিদিন দেখে যাব;

(তাতেই স্তষ্ট হব ;)--

--তাতেই মনের আশা না মিটেও মিটিবে ; তাতেই পুলক-স্রোতঃ দুর্ণিবার ছুটিবে ! হৃদয় চঞ্চল হ'লে ভাল করে বুঝাব। অন্তরের ভালবাস অস্তরেই রাখিব। | (পাছে প্রকাশিলে পরে-_

আমারে গোপন করে) অতএব কারো কাছে বলাত না হইবে (অস্তরের ভালবাস! অস্তরেই রহিবে 1)

তু

যার ধন,__সেই যদি____ -নিবারে নিষ্ঠ,র হয়ে-_-চক্ষের দেখাতে)

তাহা হ'লে কি করিব?

(নিশ্চয় উন্মত্ত হব!) -_অস্তরে লুকায়ে কিরে, পাবনা! দেখিতে ?

ভূবনমোহিনী প্রতিভা ৩৫

আস্তে অস্তরালে থাকি-__

_-বঞ্চিয়া অন্যেরে আখি, --সরলার ছায়! মাত্র দেখে লবে চকিতে ; সে দেখাত অন্যে কেহ পাবেনাক দেখিতে ! “ভালবাস1”--এত জাল! কে জানিত স্বপনে ? (জানিলে, পতঙ্গ.কভু পড়িতনা আগুনে 1)

মনে করি ভূলে যাই,

(ভূলিলেও সুখ নাই,) শৈশবের খেলা ধুলা পড়ে সদা মনেতে। (তারি তরে পোড়া মন, গারেনাক ভুলিতে 1)

বাল্যের--সে ভালবাসা____ --অস্থি মজ্জা রক্ত সঙ্গে মিশায়ে গিয়াছে

শ্মশানে চিতায় যবে,

প্রপঞ্চ দগ্ধ হবে)

-তখনো সন্দেহ ভূল! ;--(জন্মাস্তর আছে 1)

মন যাবে- স্বৃতি যাবে, কাকে চক্ষু খুলে খাবে,

আত্মাত থাকিবে চির ;--(চিরকালি রয়েছে ।) তাতেই ভালবাসা নিত্য বস্তু হয়েছে ! জন্ম জন্ম এই মৃত্তি উপাসনা করেছি ; জীবনে-_মরণে তারে জ্ঞান-্চক্ষে হেরেছি 1 __নতুবা কেন হায়।__. আধারে আলোক প্রায়__

ত্৬ ভূবনমোহিনী প্রতিভা

--এ অশধার সংসারের পথে দীপ্তি পেছেছে £ (পথ হারা পথিকেরে পথ বলে দিতেছে 2)

কিবা দেখিলাম 1& ১৮ কিধা দেখিলাম শারদী সন্ধ্যাতে ! ুধ্য ডূবু ডূবু প্রায় ; যে ডুবিল হায়! ডুবায়ে বিমল পৃ্ী তিমির শ্রোতেতে! ডুবুক বিমল পৃথথী তিমির আোতেতে, নিবাগ হুর্য্যের প্রভা, ফুটুক আশাধুলি শোনা মোহিবারে মুদ্ধ মন জগতে যুড়াতে; দেখি তাই, লিখি তাই, তাই ভাবি চিতে! কিবা দেখিলাম লীলকাস্ত পটে ;-- একটি সরসী কুলে বপি শ্যাম ছুর্ববাদলে সরসীর ঢেন্ট গুলি ধীরে ধীরে ছুটে, দেখিয়া ভাবিতেছিন্থ কেন ঢেউ ছুটে ? যদ্যপি বাতাস ভরে, একটী পল্লপবনড়ে একটি ছুর্বধার দল যদি কেঁপে উঠে, ক্ুবু তরল জল কীপিবার বটে !

* এই কাবিতাটী অনেক দিনের লঞ্সিত, নেই জনা ইহার অনেকা-শ লু হইয়া'শয়াছে।

ভুবনমোহিনী প্রতিভা ৩৭

স্থির বাষু। স্থির পত্র; স্থির ছূর্ব্বাদল,

তবে নির্মল জল কেন হ'ল বিচঞ্চল £ কেন তর প্রতিবিষ্ব নাচে অবিরল ? নাচে কেন ? চেয়ে দেখ সোণ!র কমল

ফুটেছে অপর কুলে, ঘাটের সোপান মূলে চগল! বালিকা এক নড়াইছে জল,

তটে বগি দোলাইয়া চরণ যুগল।

নব মুকুলিতা, কাচাকাঞ্চন বরণী,

আলুয়িত কেশরাশি মুখচন্্র হানি হাসি-- * নির্ভয় হৃদয়, দৃষ্টি স্নেহ কুশলিনী,-_ স্থাপিয়। গগণ পটে করে কণ্ঠ ধ্বনী।

মধুর অস্ফুট তানে, গাইছে আপন মনে! মাঝে মাঝে হাসি শোতেঃ ভাসে আদরিণী। সন্ধ্যালোকে কে তুমি রে এথা একাকিনী ?

চাহিয়! বালিকা কেন আৰাশের পানে

আহলাদে ভাসিছে শব? আমি চেয়ে দেখি কৈ কি দেখি এমন করে আপনার মনে ? আহা! কি দেখিনু সুনীল গগনে !

মধুর স্থম্বচ্ছাকাশেঃ কত চিত্র যায় ডেসে,

এই ন্ধ্যালোকে, এই বালিকার সনে, এই সরোবর তীরে দুর্বার আসনে,

৩৮ ভূবনমোহিনী প্রতিভা!

চে বসি যদি এই মনে, এই নয়নেতে। এই আকাজ্কায় লয়ে, এই প্রেম যন্ত্র দিয়ে, নিরখিয়ে দেখে কেন পাবে সে দেখিতে, কেমন ভাসিছে চিত্র গগন পটেতে !

চে মর চে চি ক্ষ চে রঙ চে ঙঃ ক্ষ ষ্ নু চে সং রস রং সং সং রঙ সু সং স্ রঙ সূ রস রঙ স্ রং সর ষ্ সু সং সং সং স্ব সং চা সু র্ সব চি ফু চর স্‌ চি ঙ্ ঙ্ সক ঙ্

হরিতন্তুকাস্ত কিবা ধান্যক্ষেত্র শোভা,

বিস্তৃত ভূভাগ দেশ, শ্যামল সুন্দর কেশ, ধরেছে আদরে কৃষকের মনোলোভা ! কেবল কৃষক কেন, কবি মনোলোভা ! নু

এশা

% এই কবিতাটার অযগ্থরাক্ষিত'নিবন্ধন অনে কাংশ বিনষ্ট,হইয়াছে।

ভ্বনমোহিনী প্রতিভা ৩৯

দুরেতে ভূধর ধীর, তুলি শ্বীর উদ্ধ শির, গগন প্রান্তেতে গিয়া মিশার়েছে'কিব। ! শ্যামকান্ত গায়ে হেমান্ুধ আভা! দেখিতে দেখিতে সন্ধা গাঢ়তর হ'ল, পলকের অবসরে সব শোভা গেল দুবেঃ গগনে নক্ষত্রকুল বিকীর্ণ, হুইল, শির্মল নুধাংস্থ জিগ্ধ কিরণৈ হাদিল! ,যাই আর বসে কেন ? ভূলিবেন। মুগ্ধমন দেখিবেনা আখি আর যাহা দেখেছিল তবে আর কার তরে বসে রই বল?

১৯এ এগ্রেল ১৮৭৫।

আজও চক্র ন্র্যা ভাবতে প্রকাঁশে।

আজও নর্গত্রাদি ফুটিছে জাকাশে!

আজও রাত্রি দিন হতেছে ধরায় !

আজও সমীরণ জগত বাচায়। আজও ধরণীর বক্ষে ধরাধর, আজও ধরাধরে গলিছে ধারা! চপল চমকে, জলদদ ঝমকে, ্মকে নাদিছে) চমকে ধরা! আজও মেঘ হতে বজ্রপাত হয়, পাগীর পরাণে উপন্ধয়ে ভয় ; আজও অনন্ত ন্থুনীল গগনে, উঠি ধূমকেতু ধায় কুর্ধ্য পানে, দিনেশের দূত ধূমকেতুগণ শোকের সংবাদ করে নিবেদন।

৪০ ভূবনমোহিনী প্রতিভা

আজও অমানিশি, আজও পৌরণমাসী,

অশাধার, আলোক--কীদিছে হাসিছে!

ডুবিলে মিহির ক্ষরিছে শিশির

নিশির পীযৃষে নিখিল ভাসিছে ! প্রকৃতির গ্রষ্থি যেমন তেমনি, রয়েছে এখনও সতত নিম্বনি, বহিছে মুছুল সমীর ধীরে, ফুটিছে কুসুম তরুর শিরে, মোহিছে বিহ্গ মধুর তানে, কাজে হৃদিতনত্রী সে মুলতানে

ছিড়িবে সে তন্ত্র; শুন, আচগ্বিত-_

গ্রাইছে বরদা বিষাদ সঙ্গীত।

“কেন বা সৃষ্টি হয়নাক নাশ?

কেন বা সংসারে জীবের আবান? ভাঙ্গিয়া পড়ুক স্থুমেরু-শিখর, যাক রসাতলে ইহ চরাচর ! যাক মরু হয়ে চাহিন! চাহিনা, জড়জগতে জড়ের মহিম!

হোক রক্তময় অনন্ত পাথার,

ভাদি যাক শব কাতারে কাতার।

শক্তি মুখে স্বার্থ দিয়! বিসর্জন

নৃতন জগত করিয়া স্বজন

পার শিখাইতে স্ব অবল্গন। ত৷ হলে সংসার সুখের হইবে, যাইবে হৃদয়-বেদন! দুরে! স্বেদসিক্তদেহে হংসপুচ্ছ লয়ে, দাসত্বের বোঝা মাথায় বহিয়ে,

বিষাদ অনলে মরোন। পুড়ে

ভৃবনমোহিনী প্রতিভা। ৪১

দেখ-_

গগিভীর নিত্রিত ভারত সাগরে, সভ্যতার জ্তুর চক্রবাত্যাভরে, _-সহদ! তুমুল ঝটিক। উঠ্ভিল, জলরাশি কাপি আকুল হইল, উঠিল তরঙ্গ ভীষণ ভীষণ, ভীম হুঙ্কার তরঙ্গ গর্জন! টলিল ব্রন্মাও ! অধীর! ধরণী, যায় যায় যায়, যায় বা এখনি ! যায চন্্র-ূর্ধ্য-আলোক নিবিয়া, যাঁয়রে জগত অতলে ডুবিয়।

গ্রহ গ্রন্থি ছিডি পড়ে খসি!

আকাশ ভাঙ্গিয়। পড়ে পড়ে পড়ে!

কোথায় পলাবি, পলারে পলারে

গেলরে হলোরে নিবিড় আধার! কোন দিক আখি দেখে নাক আর!

পড়েন। প্রশ্বা নাসিক নিরোধ,

জগতের আর নাহি অবরোধ ! নাই সুবিচার যগা ইচ্ছা যার, লহ লহ শব্দ রাজার প্রজার, স্বার্থ নিরয়েতে ডুবিল সংসার, বাক ছারখার দশ দ্িশি।”

ছুঃখিনী মহিষী।

(ভারত সমুদ্রতীরে )।

কিবা-_সুনীল নিরধি-কাস্তি নিথর নিটোল! অনন্ত গভীর নীরে সান্ধ্য বাঘু বহে ধীরে, .

নাহিক ভরঙ্গ ভঙ্গ ঘোর গওগোল!

৪৫

ভূবনমোহিনী গ্রতিভা।

নির্মল গগন-গাত্রে নাহি জলধর-বিন্দু,__

নাহি চল সৌদামিনী অশনি-গর্জন !

নাহি বৃষ্টি ভয়ঙ্কর নাহি মেঘ আড়ম্বর__ গুড়, গুড়, শব; স্তব্ধ-__স্থস্থির ভূবন !

অবিচল তর পত্র, _বল্পরী কুম্ুম-রাজী,

ভূণ ছুর্বাদল কুল, সলিল শীকর। প্রদ্োষ তিমির জালে, বিশ্ব আবরিয়া ফেলে, পশ্চিম গগন ভালে সিন্দুরের ফৌটা! সম সাগরে ডুবিছে হুর্য্য সহ নীলাম্বর!

ডুবিল ভাস্কর-মূষ্তি পলকে পলকে,

সুনীল গ্রদোষাম্বরে,

ফুটিত্তেছে ধীরে ধীরে, হীরক কুন্ুমীবলি__তাঁরা লাখে লাখে) অমল কিরণ-আ্রোতে ভামিল ভূবন (কিবা! ) চন্ত্রমা-মধুরা নিশি,

উজলিছে দশ দিশি উজ্জলিছে সাগরের ছুস্তর জীবন!

দেখ-_সুস্থির স্ুনীলানস্ত সিন্ধু হৃদয়েতে ভাসে একমাত্র রী (পূর্ণ অমূল্য রতনে 1)

ভূবনমোহিনী প্রতিভা ৪৩

জীর্ণ ছিন্--পক্ষ তরে, সাগর-হৃদয়ে উড়ে, বিদেশী নাঁবিক ধূর্ত রক্ষক তস্কর তায়-_ --সরল সুজন সাধু দিল কোন প্রাণে?

দেখ-_মেঘ নাই বায়ু নাই চৌদিক নির্মল, মধা সাগরেতে গিয়ে কুঠছুর আঘাত দিয়ে বিশ্বাস ঘাতক লোভে হইয়া বিহ্বল-_ আত্মসাৎ করি রতু ডুবাইল শৃনায তরী অতল সলীলে ওই শ্রেনীর সহিত। উঃ 1__বিনা মেঘে বজ।ঘাত, অকস্মাৎ ঝঞ্চাবাত ! মুছুম্ুু হইতেছে মেদিনী কম্পিত !

ভারতের চালে চালে বায়স কর্কশ কণ্ঠে ডাকিছে সঘনে, উড়ে বসিতেছে ফের, দিবায় কাদিছে শিবা বৃদ্ধ যোসা শিশু যুবা, সকলেই হাহাকার করিছে (ভারতে আজ-_ --বিষাদ কালিম! মাথ! বাণী সকলের 1)

ভুবনমোহিনী প্রতিভা

কাদিছে সম্বাদ পত্র--কবির অস্তর-_. অবল। ভুর্বল! প্রানী, --পিগ্ররের বিহঙ্গিনী, কাদিতেছে অবরোধে (দেখায়ে ঈশ্বর 1) কে-রে নধর যৌবন! পন্স-পলাশ-নয়নি ! মুক্তকেশ, মুক্তহৃদে, স্মলিত চরণে,-- পথের ধুলায় পড়ে উলটি পালটি করে-_ পাষাণ-বিদর! শোক কাদিছ সঘনে ? মলিন হীরার কণ্ঠী যে যেরূপ গ্ভায় আজ মলিন সে রূপ রাশি, মরিরে সুন্দরী ! সুখায়েছে মুখশশী, নয়নের কোলে মসী-_- পড়িয়াছে, হুপ্ধীপোষ্ কুমার কাদিছে কাছে __দ্রেখ মুখ তুলে আর দেখিতে না পারি !

লক্ষ্মী হয়ে ভিক্ষা! মাঁগ! তোমার ললাঁটে,_ কোন্‌ বিধি হান বাম,_- লিবিল পরিণাম ?

কর্ণস্থত্রে জড়ক্ষেজে এতই কি ঘটে?

ভূবনমোহিনী প্রতিত1। ৪৫

আছিল বিস্তৃত রাজ্য খানেশ যাহার,

বছু রত্ব পরিপূর্ণ অতুল্য ভাঁগার, সেজন বিপাকে পড়ে, বন্দী আজ কারাগারে,

ভিক্ষার ভাজন তার প্রাণের কুমার !

ধঁ তার পাটেশ্বরী পথে পথে কানে আজ উন্মাদিনী প্রায়, ওর যে ছুঃখ অস্তরে,

ভারত বাসীর! বিনে,

ভিন্নদেশী অন্য জনে -_কি বুঝিবে? পর কভু জানে কি পরের ছুঃখ ? জানে সেই যেজন' পুড়েছে অঙ্গার!

রাণী অনপুর্ণা % যাও, স্বর্গে যাও ভন্রপূর্ণ! রাণী, যাও মা নিষ্পাপ নিরাতঙ্কপুরে। যাও, স্ুখশাস্তি রাজ্যে সুচরিত্রে ! পুণ্যের পতাকা উড়ায়ে সংসারে।

যশের ছুন্দুভি বাজিছে সঘনে, আনন্দ আরাবে পূর্ণিত গগন !

নন্দমম সৌরভ বহে গন্ধাবহ, গিগ্ধ সুধারশ্মি বিতরে তপন।

০৯০২০৭০৭২২১ ৮০ * বঙ্গদেশ বিধাত, নসীগুরের রাজা উদয়মত্ত সিং

সিংহ বাহাদুরের হধর্দিণীর পরলোক গমনোপলক্ষে রচিত। মি

৪৬

ভূবনমোহিনী প্রতি |

পারিজাত বৃষ্টি হয় 'অস্তরীক্ষে বিদ্যাধরীগণ করে জয়ধবননী, পুষ্পক বহিয়া উড়ে পরি দল যান স্বর্গ পরে অন্নপূর্ণা রাণী! বাজিতেছে বীণ! মুরজ মন্দিরে গাইছে নাচিছে অগ্লরী কিন্নরী, হিরণা ভূঙ্গারৈ পুরিয়া পীঘুস বিতরে আনন্দে দেব বিদ্যাধরী!

শ্বচ্ছ জ্ঞানময় জ্যোতি তে মণ্ডিত, দেবের বিমান উঁড়িছে অন্বরে) “ধন্য অন্নপূর্ণা পুণ্যময়ী শুভে !” গাইছে প্রক্কৃতি একতান স্বরে ! ওমা, শন্নপূর্ণা ! সাজ্জী কুলনিধি! সহ্ৃদয়া, দয়া ধর্ম পরারণেঃ অবলাকুলের ভূষণ তুমি মা, _-চির মুক্ত হস্তা দীন হীন জনে। নসীপুর ধান্ত গৃহ লক্ষ্মী তুদ্দি-- প্রাচীন বংশের শেফ নিদর্শন, অন্নপূর্ণ। মাম স্বার্থক তোমার, স্বার্থক তৌমীর গুধোর জীবন

ভূবনমে।ছিনী প্রতিভা ৪৭

লোক যশঃ তৃষ্ণা! ছিল না৷ তোমার, ছিল না অলীক সম্মান বালগা! পর ছুঃখে চিত্ত বিপিলিত হয়ে, দা পৃর্াইতে দীন দুঃখী আশা! গোপন সংকার্ধা সাধিতে সতত, সাধিতে সতত লোকহিত ব্রত, যশের সঙ্গীত শুনিতে না করণে কাজেই কাগজে হতনা লিখিত।

ছাপাইয়া নাম সাহেক সমাজে) নৃতন টাইটেল: ল/তেন| তৃষ্মিত, ইংরাজ সেবায় করিতে না ভক্তি কাজেই: কাগন্ডে হতনা লিখিত (বদান্যে লতেন! উচ্চ স্কুপারী'স, ) সাহেৰ হান্ধিমে ভোজত, দিতে না, ইংরাজের পদে হতেন প্রণত কাজেই কাগজে লিখিত হ'তনা।

ওমা. অন্পূর্ণ। ! ভীক্ষ বুদ্ধিমতী, মীরা, তেজন্দি নী, রাজ্জী সুস্ দৃষ্ট।!

রাণী মহ্বোদয়ান্ মৃতযার পরেঈ, এই কবিত)টা স্বাক্ষরে মুদ্রিত হইয়া বিতরিত হইয়াছিল এইক্ষণ ত1হাঞ্ে চরশ্রকণার্থ ইহা গরন্স্থ করা হইল)

ভুবনমোহিনী প্রতিভা

তোমার গুণের কাহিনী জননী, লিখিক্ব। মিটেন। লেখনির ভৃষ।

মা, তুমি পবিভ্রাঃ সরলা ক্ুপ্রাজ্ঞা, জ্ঞান, যশঃ, কীন্তি মতী, পুণ্যবতী,

দীন দুঃখী জন জননী, আমার সংসার কাননে আশ্রর ব্রত তী

জনক জননী জানিনা কভু মা, তুমিই সংসারে সকলি'আমারঃ তোমার কপাক্গ নিরাশ্রয় শিশু--_ লালিত পালিত্ত, হাক্স ! মাতোমার পবিত্র ন্বেহেতে হইয্সা বঞ্চিত কিমের অপেক্ষা করিব সংসারে 2 আশার আলোক নিবায়েছে, মোর ভবিষ্যত মোর আবৃত আঁধার !

ওমা! কম্মক্ষেত্রে ফেলায়ে আমায়, স্থখ শাস্তি ধামে চলিল! আপনি ?--- কোন অপেক্ষায় সংসার কারায়, দীর্ঘ জীবন ফাপিব জননী ?

ভূবনমোহিনী প্রতিভা ৪৯

অকুল সংসার সাগরে ভাসায়ে

কোথা যাও মাগে। ফিরিয়া! তাকাও, নিরাশ দগ্ধ জীবনের বোঝ।

আর কত কাল বব বলেযাও ! আর কতকাল শুন্য প্রাণ মনে

সংসার প্রান্তরে করি হাহাকার ? আশার সরসে নাই জল বিন্দু

পিপাসার বিকল আমার মন্ত্রণাতপন তাপিত জীবনে

আশ্রয় পাদপ তুমি মাত্র ছিলে। ছায়! জল শূন্য এদীর্ঘ প্রাস্তরে

ফেলায়ে জননী কোথায় লুকালে ?

জন্মাবধি এই ছুঃখ দগ্ধ প্রাণে, তুমি মাত্র ছিলে শাস্তির নিদান | জীবন যন্ত্রণা হইলে অসহা-_ প্রবোধিয়! সুস্থ করিতে মাপ্রাণ !

সংসার ভিতরে আমার সমান বিচিত্র অর্দষ্ট কাহারোহবেনা।

লিখিতে দারুণ ছঃখের কাহিনী আত্মা অবসর লেখনী সরেনা !

৫০ ভুবনমোহিনী প্রতিভা |

যাঁওগে। জননী, যাও পুষ্পকেতে, অজর অমর নিত্যানন্দ পুরে |

আমার যন্ত্রণা অনস্ত অপার। পুড়িছি পুড়িব জন্ম জন্মাস্তরে

পুড়িয়া পড়িয়া হইব অঙ্গার হব ভদ্ম রাশি সংসার শ্শানে আক্ষেপ করিয়! কি করিব আর? কে লঙ্বিতে পারে অদৃষ্ট শাসনে

ছুঃখতাপদগ্ধ শীর্ণ কলেবরে যে দিন সঁপিব কালের কবলে; যুড়াব সে দিন যাইবে যন্ত্রণা ! হবে দগ্ধ স্থৃতি চিতার অনলে।

বাঙ্গালীর জ্ঞানালোক।

পতঙ্গ উড়িতেছিল আপনার মনে, ঈষৎ বাতাস ঘায়, ভূমে পড়ে ুচ্ছ যায়, উঠে ক্ষণে) পুনরায় উধাও গগনে! নবীন পাখার জোরে, যেখানে সেখানে ফিরে, বাধা নাই, কেহ তারে দেখেন নয়নে

ভূবনমোহিনী প্রতিভ]। ৪১

মাহি জ্ঞান, নাহি ভয়, নাহি ছুঃখ স্থখোদয়, মাহি হিতাহিত বোধ প্রাণের কারণে! সহসা দ্বীপের শিখা! দেখি, পুনঃ দিল দেখা, (সুন্দর সুখাদয আলে) ভাবি মনে মনে, পড়িল পতঙ্গ ওই দীপের আগুণে ! সু দরিদ্র অবোধ ওই বাঙ্গালি সম্তান! ছূর্বল পতঙ্গ প্রায় উড়ে, অতি ধীর বায় __ভূমে পড়ি সুচ্ছ? যার আবার অভ্ঞান__ উঠি ক্ষণকাল পরে, ঠাদ ধরিবার তরে উঠিল আকাশ পরে পতঙ্গ সমান ! ভুলোকে আলোক দেখি নির্বোধ অস্তরে স্থুখী ! জানেন। স্থখের আলো! অগ্নি, দহে প্রাণ ! পড়িলে উহার মাঝে, আর কিরে রক্ষা আছে ? তথাপি না মানে বাধা হারাতে পরাণ দুর্বল পতঙ্গ প্রায় বাঙ্গালি সম্তান ; দিল ঝাঁপ অনলেতে কে ধরে উহাকে ? বিষম ঝটিক। ভরে শাখার পল্লব ছিড়ে উড়ে